রবিবার ১৪ অগাস্ট ২০২২



জাহাঙ্গীরের আলাদা মিশন ছিল: আজমত উল্লা খান


আলোকিত সময় :
24.11.2021

আলোকিত সময় ডেস্ক :

প্র: গাজীপুর নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম দল থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন। জাহাঙ্গীর আলম দীর্ঘ সময় ধরে দলে আছেন। তাঁর নিশ্চয়ই অনেক অনুসারী আছে। তাঁর বহিষ্কারে দলে নতুন করে একটি পক্ষ সৃষ্টি হবে না? এর ফলে দলের ক্ষতি হবে না?

আজমত উল্লা খান: জাহাঙ্গীর আলমকে যখন আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে, তখন থেকে আওয়ামী পরিবারের কেউ তাঁর সঙ্গে নেই। তাঁর অতীত দিনের কার্যকলাপে দেখা গেছে, তিনি দলে থেকেও এর বাইরে একটি বলয় তৈরি করেছিলেন। এটা তিনি করেছিলেন জাহাঙ্গীর ফাউন্ডেশন নামের একটি সংগঠনের মাধ্যমে। এই জাহাঙ্গীর ফাউন্ডেশনে যারা ছিল, তাদের অধিকাংশের ব্যাকগ্রাউন্ড ছাত্রশিবির বা জামায়াত বা বিএনপি। তাদের নিয়েই তিনি একটি প্রভাব বিস্তার করেছিলেন।

আজমত উল্লা খান: জি। এসব দলের লোক ছিল। তাই অনেক সময় আমাদের নেতা-কর্মীদের এ নিয়ে প্রশ্ন ছিল। তিনি সিটি মেয়র ও সাধারণ সম্পাদক হওয়ায় তাদের অনেকের আপত্তি ছিল। কিন্তু যখন তাঁর ভিডিও ভাইরাল হলো, তারপর সাধারণ নেতা-কর্মীরা এককাট্টা হলো। এরপর যখন তাঁকে বহিষ্কার করা হলো, তখন আমাদের আওয়ামী পরিবারের সবাই একত্র হয়েছে। সুতরাং তাঁর অবর্তমানে দল ক্ষতিগ্রস্ত তো হয়ইনি, বরং তাঁর কার্যকলাপের কারণে যাঁরা দল থেকে অভিমান করে দূরে ছিলেন বা নীরব ছিলেন, আমাদের সেই নেতা-কর্মীরা সরব হয়ে গেছেন খুবই। গাজীপুরের আওয়ামী লীগের যে ঐতিহ্য আছে, সেটি ফিরে আসবে। এই গাজীপুরকে বলা হয় ‘দ্বিতীয় গোপালগঞ্জ’। সেই অবস্থা আবার ফিরে আসবে। এখানে বিভাজনের কোনো প্রশ্নই নেই।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি