বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২



পিঠে ক্যামেরা বাঁধা ব্যাগ নিয়ে ধ্বংসস্তূপে ঢুকে যাবে ইঁদুর, খুঁজবে আটকে থাকা মানুষ ?


আলোকিত সময় :
25.10.2022

আলোকিত সময় ডেস্ক :

ভূমিকম্প থেকে ট্রেন দুর্ঘটনা, অনেক সময়ই আহতরা বিভিন্ন বিপর্যয়স্থলে আটকে থাকেন। যোগাযোগ করা সম্ভব হয় না বলে কখনও কখনও বিলম্বিত হয়ে যায় উদ্ধারকাজ। অথচ কিছু আগে জানা গেলেই হয়তো বাঁচানো যেত প্রাণ। সেই সমস্যা কমাতে এ বার কাজে আসতে পারে ইঁদুর। বেলজিয়ামের এক দল বিজ্ঞানী প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন কিছু ইঁদুরকে, যাতে সেগুলিকে ব্যবহার করা যায় উদ্ধারকাজে।

এপিওপিও নামের একটি সংস্থার বিজ্ঞানীরা বানিয়ে ফেলেছন ইঁদুরের পিঠে লাগানোর মতো বিশেষ এক ধরনের ব্যাগ। সেই ব্যাগে থাকবে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ক্যামেরা। বিজ্ঞানীদের দাবি, ওই ব্যাগ পিঠে নিয়ে ইঁদুরগুলি ঢুকে যেতে পারবে ধ্বংসস্তূপের ভিতর, খুঁজে বার করতে পারবে আটকে থাকা মানুষকে। ডনা কিন নামের এক গবেষকের নেতৃত্বে চলছে এই গবেষণা। সংবাদমাধ্যমে ডনা জানিয়েছেন, ইঁদুর খুবই উৎসুক একটি প্রাণী। আকারেও ছোট। তাই চট করে অল্প জায়গার মধ্যে দিয়েও সেগুলি ঢুকে পড়তে পারে। সেই কারণেই এই প্রকল্পের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে ইঁদুরকে।

যে পিঠব্যাগ ইঁদুরগুলি বইবে, সেটি তৈরিতে সহায়তা করেছে আইন্দোভেন ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজির গবেষকেরা। ২০১৯ সাল থেকেই বিষয়টি নিয়ে গবেষণা করছেন বিজ্ঞানীরা। ২০২১ সালে প্রকল্পটি সরকারি ভাবে ঘোষণা করা হয়। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ইঁদুরের পিঠের ব্যাগগুলি থ্রিডি প্রিন্টার ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে। তাতে থাকবে একটি ভিডিয়ো ক্যামেরা। সেই ক্যামরা থেকে সরাসরি ভিডিয়ো ফুটেজ সম্প্রচারিত হবে ল্যাপটপ কিংবা মোবাইলে। সমুদ্রে ডুব দেওয়ার পোষক যে উপাদানে তৈরি সেই উপাদান দিয়েই তৈরি হবে ইঁদুরের পোশাক। তবে এখনই কাজে নামতে পারছে না ইঁদুরগুলি। বিষয়টি নিয়ে আরও গবেষণা প্রয়োজন বলেই জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি