বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২



চট্টগ্রামের বন্দর থানা এলাকা থেকে চুরি হওয়া শিশু ফেনী থেকে উদ্ধার


আলোকিত সময় :
23.11.2022

রাজু চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :

ট্রেন যাত্রায় স্বল্প সময়ের আলাপে ঘনিষ্ঠতার সুযোগে এক নানীর নিকট থেকে কৌশলে নাতনীকে চুরি করে নিয়ে যায় এক ব্যাক্তি।
ঘটনাটি ঘটেছে চট্টগ্রাম নগরের বন্দর থানার কলসিদিঘী এলাকায়। চুরি হওয়া শিশুটির নাম জেমি,।বয়স ৩ বছর। অপহরণের দীর্ঘ ৬০ দিন প্রচেষ্টার পর ফেনী জেলার ফেনী সদর থানা এলাকা হতে অপহরণকারী গ্রেপ্তার ও শিশু জেমি-কে উদ্ধার করেছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ সিএমপি’র বন্দর থানা পুলিশের একটি টিম।
চলতি সালের ২২ সেপ্টেম্বর সকাল ১১ টা ৩০ মিনিটে তিন বছর বয়সী শিশু জেমি তার নানীর সাথে কুমিল্লা জেলার লাকসাম থেকে ট্রেনে গুট্টগ্রাম তার খালার বাসার উদ্দেশ্যে রওনা করে। ট্রেনে জেমি কান্না করতে থাকার সুযোগে শিশু চোর মোঃ জয়নাল আবেদীন প্রকাশ সুমন (২৭) তাকে কোলে নেয় এবং জেমির নানীর সাথে আলাপ করে ঘনিষ্ঠতা এক পর্যায়ে জেমির নানীর অপর মেয়ে গার্মেন্টস কর্মী এর বন্দর থানাধীন বলসিদিঘীর পাড়স্থ বাসায় যাবে সেইটা কৌশলে জেনে নেয় জয়নাল ওরফে সুমন। তারপর সেও একই এলাকায় যাবে বলে জেমির নানীর বিশ্বাস অর্জন করে।
আনুমানিক দুপুর অনুমান ২ টা ৪৫ মিনিটের দিকে ট্রেন হতে চট্টগ্রাম স্টেশনে নামে। তারপর লোকাল বাস যোগে ফ্রি-পোর্ট এলাকায় নামে। তখনও শিশু জেমি জয়নাল এর কোলে ছিল। তারা বাস হতে নেমে রাস্তা পার হয়ে কলসিদিঘী রোডে প্রবেশ করে। শিশু জেমির নানী সামনে হাঁটতে থাকাকালীন শিশু চোর জয়নাল পিছন দিয়ে কোলে থাকা শিশু জেমিকে নিয়ে দৌড় দেয়।
শিশু জেমিকে অনেক খোঁজার পর না পেয়ে বিষয়টি  তার পিতা বন্দর থানায় অভিযোগ দায়ের করলে বন্দর থানায় ২৩ সেপ্টেম্বর, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধন ২০০৩) এর ৭ ধারা মামলা রুজু করা হয়।
শিশু জেমিকে উদ্ধারে তদন্তে নামে বন্দর থানা পুলিশের একটি চৌকস টিম। ঘটনাস্থলের সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে অপহরণকারী শনাক্ত এবং শিশু জেমিকে উদ্ধারের চেষ্টা শুরু করে। শিশু জেমিকে উদ্ধারের প্রচারণার জন্য গণমাধ্যম কর্মীদেরও শরণাপন্ন হয় বন্দর থানা পুলিশ।
ট্রেন স্টেশন, বাস স্টপেজ ও সম্ভাব্য স্থান সমূহের সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে কয়েক দফা কুমিল্লা জেলার লাকসাম, চৌদ্দগ্রাম ও ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।
অবশেষে আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ও গোপন সংবাদের মাধ্যমে ২২ নভেম্বর অপহরণকারী মোঃ জয়নাল আবেদীন প্রকাশ সুমনকে চট্টগ্রাম জেলার জোরারগঞ্জ থানাধীন বারইয়ার হাট এলাকা হতে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। তার বয়স ২৭ বছর এবং পিতার নাম নুরুল আমিন ও মাতা মৃত রাহেনা আক্তার। শিশু চোর জয়নাল প্রকাশ সুমন ফেনী জেলার, ফেনী সদর থানার ১ নং ওয়ার্ডের ৮ নং ধলিয়া ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর এলাকার আব্দুল মজিদ মুন্সী বাড়ির বাসিন্দা।
গ্রেপ্তারের পর শিশু জেমির অপহরণকারী মোঃ জয়নাল আবেদীন প্রকাশ সুমন (২৭)-এর দেয়া তথ্য মতে, ১২ বছরের বিবাহিত জীবনে নিঃসন্তান এক নারী নাম আমেনা আক্তার ওরফে খালেদা এর লালন-পালনে থাকা শিশু জেমি (৩ বছর)কে ফেনী জেলার ফেনী সদর থানা এলাকা হতে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।
এই ব্যাপার বন্দর থানায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সিএমপির বন্দর জোনের উপ- কমিশনার শাকিলা সুলতানা সাংবাদিকদের জানান, তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বিভিন্ন সম্ভাব্য স্থানের সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে এবং গোপন এক সংবাদের মাধ্যমে উদ্ধার করা হয় শিশু জেমি প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপহরণকারী মোঃ জয়নাল আবেদীন প্রকাশ সুমন জানায়, সে শিশু জেমিকে তার শ্যালিকার মেয়ে পরিচয় দিয়ে ১২ বছরের বিবাহিত জীবনে নিঃসন্তান নারী আমেনা আক্তার ওরফে খালেদা এর নিকট দত্তক দেয়ার নাম করে ত্রিশ হাজার টাকা গ্রহন করেছে। ব্রিফিং প্রদানকালে আরো উপস্থিত ছিলেন এডিসি (বন্দর জোন) শেখ শরীফ উজ জামান এবং উদ্ধার অভিযান চালানো টিম বন্দরের পুলিশ অফিসারবৃন্দ।
বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান জানান, গ্রেপ্তারকৃত অপহরণকারীকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করে উদ্ধারকৃত শিশু জেমিকে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে তার অভিভাবকের হেফাজতে প্রদানের প্রক্রিয়া চলছে।


এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি