মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪
  • প্রচ্ছদ » আলোকিত জনপথ » কুড়িগ্রামে ফেসবুকে স্টাটাস দিয়ে নিজ সন্তানকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যা করবেন নারী, উদ্ধার করল পুলিশ



কুড়িগ্রামে ফেসবুকে স্টাটাস দিয়ে নিজ সন্তানকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যা করবেন নারী, উদ্ধার করল পুলিশ


আলোকিত সময় :
21.05.2023

সাইফুর রহমান শামীম ,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :

প্রেমর ফাঁদে প্রতারিত হয়ে মানসিক দুশ্চিন্তা থেকে একমাত্র মেয়েকে হত্যা করে নিজেকে শেষ করবেন বলে  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্টাটাস দেন এক নারী। এরপর ফেসবুক লাইভে এসে এ ঘোষণা দেন। পরে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ভাবে উদ্ধার করলো কুড়িগ্রাম সদর থানা পুলিশ।

শনিবার (২০ মে) বিকেলে ওই নারীকে উদ্ধার করে পুলিশ।  ওই নারীর বাড়ি কুড়িগ্রাম পৌর শহরের হাসপাতাল পাড়া এলাকায়।

পুলিশ জানায়, তার আত্মহত্যার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেখার পর। তাৎক্ষণিক ভাবে শহরের হাসপাতাল পাড়ার বাড়ি থেকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। আগে ওই নারীর দুই জায়গায় বিয়ে হয়ে সংসার হয়নি। তার এক সন্তান রয়েছে। দেড় বছর প্রেম করে সম্প্রতি নীলারাম এলাকার সাজ্জাদুর রহমান সাজু নামে একজনকে বিয়ে করে। বিয়ের পর জানতে পারে তার পূর্বের স্ত্রী আছে। প্রতারণার বিষয়টি জানাজানি হলে বর্তমান স্বামী ( সাজু) যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। ফলে দুঃশ্চিন্তা থেকে এই পোস্ট করেছেন তিনি এবং আত্মহত্যার ঘোষণা দেন।

জাকিয়া ফেরদৌসী নামের ফেসবুক আইডে যা লেখা ছিল তা হুবহু তুলে ধরা হলো। “আমার মৃত্যুর জন্য এই ছেলে দায়ি৷ আমি আমার মেয়েকে আগে হত্যা করবো তারপরে নিজে বিষ খেয়ে মরবো। এই ছেলে আমার কাছে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে বিয়ে করছে, সংসার করতে চায় না। এই ছেলের নাম সাজু, সাজ্জাদুর রহমান। এখন সে পলাতক। আমার সোনাদানা, এমনকি আমার মায়ের সোনা দানা পর্যন্ত আত্মসাৎ করেছে। আজকেই আত্নহত্যা করবো”।

এর পর আবার ফেসবুক লাইভে এসে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে আত্মহননের ঘোষণা দেন।

সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মোহাম্মদ শাহারিয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করছেন। তিনি বলেন, ওই নারীকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। তাকে কাউন্সিলিং করা হচ্ছে। মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা অফিসে খবর দেয়া হয়েছে। তারা আসলে তাকে তাদের মাধ্যমে পরিবারে পাঠানো হবে। আর অভিযুক্ত ঐ যুবককে খুঁজছে পুলিশ। এখনো পাওয়া যায়নি। পেলে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা হবে। আর তা না হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি